,
সংবাদ শিরোনাম :
760_1

রংপুর সিটিতে সরকারবিরোধী হাওয়া ধানের শীষের পক্ষে

রংপুর সিটি করপোরেশন (রসিক) নির্বাচনের দিনক্ষণ যতই ঘনিয়ে আসছে, নগরীর ৩৩টি ওয়ার্ডের পরিবেশ ততই উত্তপ্ত হয়ে উঠছে। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের প্রার্থীর প্রভাব বিস্তার, জাতীয় পার্টির প্রার্থীর পক্ষে একজন প্রতিমন্ত্রীর আচরণবিধি লঙ্ঘন, কাউন্সিলর প্রার্থীদের হামলা-ভাঙচুর এবং একে অপরের অফিস পুড়িয়ে দেয়ার ঘটনায় উত্তপ্ততা অনেকগুণ বেড়ে গেছে। নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েনের সিদ্ধান্ত না থাকায় ভোটের আগে এ পরিবেশ আরও সহিংসতায় রূপ নেয়ার আশঙ্কা করছে এলাকাবাসী। এতে সুষ্ঠু ভোটের পরিবেশ নিয়ে ভোটারদের মনে ভীতি তৈরি হচ্ছে। এমন নানা কারণে রসিক নির্বাচনে স্থানীয় প্রশাসনের দ্বিমুখী আচরণের অভিযোগ তুলেছে বিএনপি। সূত্র বলছে, আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টির দ্বন্দ্বের মুখে রসিকের সাধারণ ভোটাররা ঝুঁকছেন বিএনপির দিকে। শেষ মুহূর্তের প্রচারণায় বিএনপি প্রার্থী কাওসার জামান বাবলার পক্ষে দলের কেন্দ্রীয় নেতারা অংশ নেয়ায় তার জয়ের সম্ভাবনা আরও বেড়েছে। সেই সাথে ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরীক জামায়াতও বিএনপি প্রার্থীর পক্ষে সমর্থন দিয়েছে। একাধিক সূত্র বলছে, সব হিসাব নিকাশে প্রভাবশালী তিন মেয়রপ্রার্থীর মধ্যে এখন জয়ের জন্য এগিয়ে রয়েছেন বিএনপি প্রার্থীই। যদি রসিকে সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণ ও ফলাফল প্রকাশে ক্ষমতাসীন দলের প্রভাব বিস্তারের ঘটনা না ঘটে তাহলে বিএনপি প্রার্থী বাবলাই ২১ ডিসেম্বরের রসিক নির্বাচনে জয়ী হবেন বলে বিশ্বাস করে বিএনপি। জানা গেছে, সদ্য সাবেক মেয়র ও আওয়ামী লীগের প্রার্থী শরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টু গত ৫ বছরে রংপুরে উল্লেখযোগ্য কোনও উন্নয়ন করতে পারেননি। তা ছাড়া নিত্যপণ্যসহ গ্যাস ও বিদ্যুতের দাম আকাশচুম্বি হওয়ায় ক্ষমতাসীন দলের প্রতি সারাদেশের মতো রংপুরের মানুষের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে। অপরদিকে জাতীয় পার্টির (জাপা) দু’জন প্রার্থী রয়েছেন। যদিও একজনকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। স্থানীয় ভোটাররা মনে করেন, দলের কেন্দ্রীয় নেতা আসিফ শাহরিয়ারকে দল থেকে বহিষ্কার করা হলেও এরশাদের পরিবারের সদস্য হিসেবে তিনি জাতীয় পার্টি মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফার ভোটে ভাগ বসাবেন। যা জাপা প্রার্থীর জয়ের সম্ভাবনা ক্ষীণ করেছে। তবে ভালো অবস্থানে রয়েছেন বিএনপি প্রার্থী কাওসার জামান বাবলা। কারণ সরকারের হামলা-মামলা, নির্যাতন, দ্রব্যমূল্যের উদ্ধগতিসহ নানা কারণে বিএনপির প্রতি জনসমর্থন বাড়ছে। রংপুর সিটিতেও এর প্রভাব পড়েছে। যদিও বিএনপি প্রার্থীর বৈধতা নিয়ে প্রথমে কিছুটা জটিলতা দেখা দেয়। কিন্তু আদালতের রায়ে সে ভীতি দূর হওয়ার পর স্থানীয় নেতাকর্মীদের মনে আশার আলো সৃষ্টি হয়। সেই সাথে কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে পেয়ে দলের ভেতর গতি সঞ্চার হয়েছে। জামায়াতসহ ২০ দলের অন্যরাও বাবলাকে সমর্থন জানিয়েছেন বলে জানা গেছে। মেয়র প্রার্থীদের প্রচারণা প্রার্থীদের একজনের বিরুদ্ধে আরেকজনের অভিযোগ যাই থাকুক না কেন রসিকে মেয়র পদে সাত প্রার্থীই শেষ মুহূর্তের প্রচার-প্রচারণা, উঠোন বৈঠক ও মিডিয়ায় সক্রিয় রয়েছেন। ভোটাদের মনজয় করতে রাত-দিন ঘুরে বেড়াচ্ছেন সবাই। তবে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা বিএনপি, আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টি সমর্থিত প্রার্থীর মধ্যে হবে বলেই মনে করেন ভোটাররা। প্রতীক বরাদ্দ পাওয়ার প্রতিদিনের মতো আজ রোববারও নগরীর বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ চালিয়েছেন তিন হেভিওয়েট [more]

হোটেল থেকে ভারতীয় অভিনেত্রী গ্রেপ্তার!

স্টাফ রিপোর্টার। ভারতের হায়দরাবাদে একটি পাঁচ তারকা হোটেল থেকে দুই অভিনেত্রীসহ মোট চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পতিতাবৃত্তির অভিযোগে গতকাল শনিবার তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়। পুলিশ জানিয়েছে, গ্রেপ্তার হওয়া দুই অভিনেত্রী মুম্বাই থেকে হায়দরাবাদ এসেছিলেন। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জি নিউজের খবরে বলা হয়েছে, হায়দরাবাদের পুলিশ শনিবার রাতে অভিজাত বানজারা হিলস এলাকার দুটি পাঁচ তারকা হোটেলে অভিযান চালায়। একজন পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, তাঁদের কাছে খবর ছিল, দুটি হোটেলে গোপনে পতিতাবৃত্তি চালানো হচ্ছে। অভিযানে বেশ কয়েকজন ব্যক্তিকে আটক করা হয়। এঁদের মধ্যে বলিউডের একজন ও ছোট পর্দার একজন—মোট দুজন অভিনেত্রী রয়েছেন। পুলিশ বলছে, দুই দালালকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তাঁরা জানিয়েছেন, ইন্টারনেটের মাধ্যমে এ কাজ করতেন তাঁরা। এভাবেই কথা হতো মক্কেলদের সঙ্গে। অর্থের পরিমাণ ও স্থান নির্ধারিত হওয়ার পর অনলাইনেই হোটেলের কক্ষ ভাড়া নেওয়া হতো। তবে দুই অভিনেত্রীর পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি। পুলিশ সূত্রের বরাত দিয়ে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের খবরে বলা হয়েছে, একজন অভিনেত্রী তেলেগু চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছিলেন। অন্যজন বাংলা টিভি সিরিয়ালের অভিনেত্রী। বলা হচ্ছে, গত সোমবার তাঁরা মুম্বাই থেকে হায়দরাবাদ এসেছিলেন। পুলিশ বলেছে, শনিবার রাতভর অভিযানের সময় গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের কাছ থেকে নগদ ৫৫ হাজার রুপি ও বেশ কয়েকটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়েছে। অভিযুক্ত ব্যক্তিদের স্থানীয় পুঞ্জগুত্ত থানার পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা [more]

সৌদি ছাড়তে হবে ১৩ লাখ বিদেশি চালককে

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সৌদি আরবের নারীরা যেন রাস্তায় নিরাপদে গাড়ি চালাতে পারে তা নিশ্চিত করার জন্য সব রকম ব্যবস্থা গ্রহণ করছে দেশটির ট্রাফিক বিভাগ এবং সড়কের নিরাপত্তায় নিয়োজিত কর্মীরা। তবে নারীদের গাড়ি চালানোর বিষয়কে কেন্দ্র করে আরও বেশকিছু প্রশ্ন সামনে চলে আসছে। সৌদি আরবের বার্তা সংস্থা এসপিএ জানিয়েছে, নারীরা গাড়ি চালানোর ফলে ১৩ লাখের মতো বিদেশি চালককে সৌদি আরব ছেড়ে নিজ দেশে ফিরে যেতে হবে। একজন চালক যে বাৎসরিক ১২ হাজার সৌদি রিয়াল বেতন হিসেবে পান, সেটা খরচ করতে হচ্ছে না দেশটিকে। এছাড়া তাদের জন্য খাবারসহ অন্যান্য সুবিধাদি দেয়ার খরচও বেঁচে যাবে। ধারণা করা হচ্ছে, এতে করে ৩৩ বিলিয়ন সৌদি রিয়াল দেশটির অর্থনীতিতে যুক্ত হবে। জানা গেছে, দেশটির ৬৬ দশমিক সাত শতাংশ ব্যক্তি কাজের লোক নিয়োগ দেয়। এছাড়া ৮৭ দশমিক দুই শতাংশ পরিবারে ব্যক্তিগত চালক নিয়োগ দেয়া হয়েছে। সেখানে বিপুল খরচে চালক নিয়োগ দেয়া হয়েছে। ২০১৮ সালের জুন মাস থেকে নারীরা গাড়ি চালাতে শুরু করলে এই ১৩ লাখ চালক বেকার হয়ে পড়বে। সে ক্ষেত্রে তাদের নিজ দেশে ফিরে যাওয়া ছাড়া উপায় থাকবে না। তবে এসপিএ জানিয়েছে, সেখানে ব্যক্তিগত গাড়ি এবং মোটরসাইকেল চালানোর লাইসেন্স পেতে ন্যূনতম ১৮ বছর বয়স হতে হবে। অবশ্য রাষ্ট্র-নিয়ন্ত্রিত যানবাহন বা পাবলিক পরিবহণ চালানোর লাইসেন্স নিতে বয়স ২০ বছর হওয়া আবশ্যক। সে ক্ষেত্রে কারও বয়স ১৭ বছর হলে এক বছরের জন্য অস্থায়ী লাইসেন্স দেয়ার বিধান রাখা হয়েছে। নারীরা সে দেশের রাস্তার নিরাপত্তায় এবং নিরাপত্তা তল্লাশি চৌকিতে বেসামরিক হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে পারবে। এর আগেও হজের সময় মক্কায় নারীরা এসব দায়িত্ব পালন করেছে। নারী এবং পুরুষের মধ্যে আলাদাভাবে কোনো আইন করা হয়নি। বলা হয়েছে, নারীরা চাইলে ট্রাক এবং মোটরসাইকেল চালাতে পারবে। সূত্র : আরব [more]

মাধবপুরে বিপুল পরিমাণ গাঁজাসহ দু’মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

ফরাশউদ্দিন পিন্টু ॥ মাধবপুর উপজেলার সদরের বাসট্যান্ড এলাকায় মিতালী পরিবহনের একটি বাস তল্লাশী করে ৫০ কেজি ভারতীয় গাঁজাসহ দু’মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ সময় বাসটি জব্দ করা হয়েছে। রবিবার রাত পনে ৭টায় থানার ওসি তদন্ত কাউসার আলম ও এস.আই মমিনুল ইসলাম বাস ট্যান্ডে ঢাকা মুখী মিতালী পরিবতনের একটি যাত্রীবাহী বাসে অভিযান চালিয়ে ৫০ কেজি ভারতীয় গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী ব্রাহ্মনবাড়ীয়া জেলার বিজয়নগর উপজেলার বারঘড়িয়া গ্রামের দুধ মিয়ার ছেলে শাহাবউদ্দিন(২৫) ও সিলেট জেলার দক্ষিন সুরমা উপজেলার বাতখোলা গ্রামের মৃত বিল্লাল মিয়ার ছেলে মোঃ মাসুম মিয়াকে গ্রেফতার করেন। পুলিশ জানায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের মাধবপুর উপজেলার বেলঘর বাসষ্টেশন থেকে মাদক ব্যবসায়ীরা ওই গাড়ীতে গাঁজা ভর্তি করেছি এ খবরের ভিত্তিতেই অভিযান চালানো হয়। এ ব্যাপারে থানার এএসআই মাহবুব আলম বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের [more]

কিশোরগঞ্জে ২ সাংবাদিক ও বান্দরবানে ৪ পুলিশকে পেটালো ছাত্রলীগ

স্টাফ রিপোর্টার। কিশোরগঞ্জের হোসেনপুরে  বিজয় শোভাযাত্রার সংবাদ কাভার করতে গিয়ে ছাত্রলীগের হামলার শিকার হয়েছেন দুই সাংবাদিক। এসময় তাদের ক্যামেরা ভাঙচুর করে তারা। ওদিকে শুক্রবার রাতে বান্দরবানে তুচ্ছ ঘটনায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের হামলায় ৪ পুলিশ কনস্টেবল আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় পুলিশ মো. এরশাদ ও সাইফুর রহমান আকাশ নামে দুই ছাত্রলীগ কর্মীকে আটক করেছে । হোসেনপুরে বিজয় শোভাযাত্রায় ছাত্রলীগের সশস্ত্র মহড়ার ভিডিওচিত্র ধারণ করতে গিয়ে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল টোয়েন্টিফোর-এর রিপোর্টার ও ক্যামেরাপারসন হামলার শিকার হন। হামলাকারী ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা চ্যানেল টোয়েন্টিফোর-এর ক্যামেরা ভাঙচুর ও ছিনিয়ে নেয় এবং টেলিভিশনটির কিশোরগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি সুলতান মাহমুদ কনিক ও ক্যামেরা পারসন আলম ফয়সালকে মারপিট করে আধ ঘন্টার মতো আটকে রাখে। শনিবার সকাল ৯টার দিকে হোসেনপুর পৌরসদরের একটি বহুতল ভবনের ছাদ থেকে ভিডিওচিত্র ধারণের সময় এই ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে স্থানীয় নেতৃবৃন্দের সহায়তায় ভাঙচুর করা ক্যামেরাটি উদ্ধার হলেও ক্যামেরার মেমোরি কার্ড ফেরত পাওয়া যায়নি। প্রত্যক্ষদর্শী সাংবাদিক এম এ আজিজ জানিয়েছেন, শনিবার সকাল ৯টার কিছু আগে হোসেনপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আল আমিন অপু, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল সাকিব ও পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা পৌরসদরে বিজয় শোভাযাত্রা বের করেন। শোভাযাত্রায় অংশ নেয়া অধিকাংশ নেতাকর্মীদের হাতেই রামদা, চাপাতি ও লাঠিসোটা ছিল। ছাত্রলীগের এই সশস্ত্র মহড়ায় পুরো এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। বিষয়টি জানার পর তিনি এবং চ্যানেল টোয়েন্টিফোরের কিশোরগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি সুলতান মাহমুদ কনিক ও ক্যামেরা পারসন আলম ফয়সাল উপজেলা পরিষদের সামনের সড়কে ছুটে যান। শোভাযাত্রাটি উপজেলা পরিষদের সামনের সড়ক অতিক্রম করার আগেই ভিডিওচিত্র ধারণের জন্য তারা পাশের সোহরাব ভেন্ডার নামের এক ব্যক্তির বহুতল ভবনের ছাদে অবস্থান নেন। সেখান থেকে সশস্ত্র মহড়ার ছবি ধারণের সময় বিষয়টি ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের নজরে আসে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে সশস্ত্র মহড়ায় অংশ নেয়া ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের একটি অংশ ওই ভবনের ছাদে ওঠে চ্যানেল টোয়েন্টিফোর-এর ক্যামেরা পারসন আলম ফয়সালের হাত থেকে ক্যামেরা ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। চ্যানেলটির সাংবাদিক সুলতান মাহমুদ কনিক ক্যামেরাটিতে ধারণা করা ছবি ডিলিট করার কথা বলে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের নিবৃত্ত করার চেষ্টা করেন। কিন্তু বেপরোয়া ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা দু’জনকেই লাঠিসোটা দিয়ে মারপিট করে এবং ক্যামেরা ভাঙচুরের পর ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এসময় তাদেরকে আধ ঘন্টার মতো আটকে রাখা হয়। খবর পেয়ে স্থানীয় নেতৃবৃন্দ এবং অন্য সাংবাদিকেরা গিয়ে হোসেনপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আল আমিন অপু, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল সাকিব ও পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেনের সঙ্গে কথা বলার পর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের কাছ থেকে ছিনিয়ে নেয়া ক্যামেরাটি কয়েক টুকরায় উদ্ধার হয়। তবে ক্যামেরার মেমোরি কার্ড ফেরত দেননি নেতাকর্মীরা। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, ছাত্রলীগের সশস্ত্র মহড়া ও তাণ্ডবে হোসেনপুরে জাতীয় কোন অনুষ্ঠান সুন্দরভাবে শেষ করা যায় না। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ক্রিড়ানুষ্ঠানসহ বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানও ছাত্রলীগের তাণ্ডবের মুখে পড়ছে। এছাড়া নিজেদের অন্তর্কোন্দলের কারণে সেখানে প্রায়ই ঘটছে সংঘাত-সংঘর্ষ। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের [more]

মন্ত্রী ছায়েদুল হকের মুত্যৃতে নাসিরনগরে বিএনপির বিজয় র‌্যালী ও আলোচনা সভা স্থগিত ॥ পরে দোয়া মাহফিল

আকতার হোসেন ভুইয়া,নাসিরনগর(ব্রাহ্মণবাড়িয়া)সংবাদদাতা ॥ জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠ রাজনৈতিক সহচর,মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক,মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ নাসিরনগর থেকে পাচঁবার নির্বাচিত সংসদ সদস্য বর্ষীয়ান নেতা অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ ছায়েদুল হকের মৃত্যুতে নাসিরনগর উপজেলা বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের উদ্যোগে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে আজ শনিবার পূর্ব নির্ধারিত বিজয় র‌্যালী ও আলোচনা সভা স্থগিত করে এক দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয় । মৎস্য ও প্রানিসম্পদ মন্ত্রী এডভোকেট মোহাম্মদ ছায়েদুল হকের এবং শহীদদের বিদ্রেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ফান্দাউক ইউপির চেয়ারম্যান এডভোকেট একেএম কামরুজ্জামান মামুনের সভাপতিত্বে উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান এম এ হান্নানের পরিচালনায় স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিসৌধ চত্বরে অনুিষ্ঠত দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ও নাসিরনগর উপজেলা বিএনপির সভাপতি আলহাজ্ব সৈয়দ এ. কে. একরামুজ্জামান। দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন থানা জামে মসজিদের ইমাম হাফেজ মোঃ অলিউল্লাহ। এসময় উপজেলা,ইউনিয়ন,ওয়ার্ড বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের তৃণমূল পযার্য়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য আজ শনিবার সকাল সাড়ে আটটায় দিকে মন্ত্রী অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ ছায়েদুল হক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। এদিকে মন্ত্রীর মৃত্যুতে গোটা নাসিরনগরে শোকের ছায়া নেমে [more]

সর্বশেষ সংবাদ

রংপুর সিটিতে সরকারবিরোধী হাওয়া ধানের শীষের পক্ষে

হোটেল থেকে ভারতীয় অভিনেত্রী গ্রেপ্তার!

সৌদি ছাড়তে হবে ১৩ লাখ বিদেশি চালককে

মাধবপুরে বিপুল পরিমাণ গাঁজাসহ দু’মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

কিশোরগঞ্জে ২ সাংবাদিক ও বান্দরবানে ৪ পুলিশকে পেটালো ছাত্রলীগ

মন্ত্রী ছায়েদুল হকের মুত্যৃতে নাসিরনগরে বিএনপির বিজয় র‌্যালী ও আলোচনা সভা স্থগিত ॥ পরে দোয়া মাহফিল

মাধবপুরে যথাযোগ্য মর্যাদায় বিজয় দিবস পালিত

মন্ত্রী ছায়েদুল হক মারা গেছেন

মহান বিজয় দিবসে স্মৃতিসৌধে প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

জাতীয় স্মৃতিসৌধে শহীদদের প্রতি খালেদার শ্রদ্ধা

পরিচালকের সাথে মমর লিভ টুগেদারের গুজব!

না ফেরার দেশে চলে গেলেন মহিউদ্দিন চৌধুরী

মাধবপুরে মাতাল অবস্থায় ভাই ও বৌদিদিকে লাঞ্চিত করায় ১ বছরের কারাদন্ড

মাধবপুরে রাস্তায় যাত্রীবাহী বাস উল্টে আহত-২০

এভ্রিলের এবার নাটকে অভিষেক

সংবাদ >> জাতীয় দুদকের সঙ্গে মাঠে নামছে মন্ত্রণালয়

হবিগঞ্জে ৭৪ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ল্যাপটপ বিতরণ

মাধবপুরে গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস আজ

বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে যাবেন খালেদা জিয়া

760_02
760_1
Popular IT Limited
235
235
235
235
480
480

ফটো গ্যালারী

235
235
235
© 2014 MadhabpurNews24.com. All Rights Reserved
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি ॥ রোকন উদ্দিন লস্কর, সম্পাদক ॥ আলাউদ্দিন আল রনি, সহযোগী সম্পাদক ॥ জামাল মোঃ আবু নাসের, বার্তা সম্পাদক ॥ আবুল খায়ের, যুগ্ম বার্তা সম্পাদক ॥ ওমর ফারুক, চীফ রিপোর্টার ॥ জুলহাস উদ্দিন খাঁ রিংকু, মাধবপুর, হবিগঞ্জ। মোবাইল ॥ ০১৭১১-৫৮৯৯৯৯৯, ০১৮১৯-১৯৫০৫৭, Email- news@madhabpurnews24.com, Website- www.madhabpurnews24.com