,
সংবাদ শিরোনাম :

ঝড়-বৃষ্টি অব্যাহত থাকবে এক সপ্তাহ

115718_b3

স্টাফ রিপোর্টার॥

গত এক সপ্তাহ ধরে চলছে ঝড়-বৃষ্টি ও মেঘের দাপট। চলতি সপ্তাহের সোমবার আকাশে কালো মেঘ জমে ভরদুপুরে নেমে আসে রাতের আঁধার। একদিন পর গতকালও একই অবস্থা তৈরি হয় দিনদুপুরে। এতদিন ঝড়-বৃষ্টি ও মেঘের দাপট থাকলেও খুব একটা ভারি বর্ষণ হয়নি। তবে এবার প্রচণ্ড ভারি বর্ষণের খবর দিচ্ছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর। আগামী শুক্রবার থেকে সোমবার পর্যন্ত ঢাকা, ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, সিলেট, সুনামগঞ্জ এলাকায় ভারি বর্ষণ হতে পারে বলে জানা গেছে।

এমন পূর্বাভাসের প্রেক্ষিতে গত মঙ্গলবার সরকারি ছুটির দিনেও জরুরি বৈঠকে বসেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের কর্তাব্যক্তিরা। বৈঠকে আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক মো. সামছুদ্দিন আহমেদও উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে তিনি জানিয়েছেন- আগামী ৪ই মে শুক্রবার থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে। এটি ৫, ৬ ও ৭ই মে পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে। শুক্রবার থেকে পরবর্তী চারদিন দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে ভারি বৃষ্টিপাতের ফলে হাওরাঞ্চলে আগাম বন্যা দেখা দিতে পারে। একই সঙ্গে পাহাড়ি এলাকায় পাহাড় ধসের ঘটনাও ঘটতে পারে বলে জানিয়েছেন।

আবহাওয়াবিদ আবুল কালাম মল্লিক মানবজমিনকে বলেন, আগামী ৬ দিন সারা দেশে বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকবে। এ কয়দিনে দেশের কিছু কিছু অঞ্চল দিয়ে ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণও হতে পারে। একই সঙ্গে দেশের অনেক অঞ্চলে কালবৈশাখী, বৃষ্টির সঙ্গে বিজলিসহ বজ্রপাত অব্যাহত থাকবে। উল্লেখ্য, ৪৪-৮৮ মিলিমিটার বৃষ্টিকে ভারি এবং ৮৯ মিলিমিটার থেকে বেশি বৃষ্টিকে অতিভারি বৃষ্টি বলা হয়।

বুয়েটের পানি ও বন্যা ব্যবস্থাপনা ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক ড. একেএম সাইফুল ইসলাম ভারতীয় আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাসকে উদ্ধৃত করে বলেন, আরো এক সপ্তাহ বাংলাদেশে ঝড় ও বৃষ্টি অব্যাহত থাকবে। এছাড়া, আগামী ৬ থেকে ৮ই মে ঢাকাসহ দেশের মধ্যাঞ্চলে দিনে ২০০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হতে পারে। সাধারণত ঢাকায় দিনে ৫০ থেকে ১০০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হলে রাজধানীর অধিকাংশ এলাকার রাস্তাঘাট তলিয়ে যায়। অনেক এলাকার বাসা বাড়িও পানিতে তলিয়ে যায়। সেখানে দিনে ২০০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হলে ভয়াবহ অবস্থার সৃষ্টি হবে। শহরের অনেক রাস্তায়ই নৌকা চালানোর মতো পরিস্থিতি তৈরি হবে।

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, মৌসুমী আবহাওয়ার ফলে লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকা পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে, যা উত্তর আন্দামান সাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় বিরাজমান। এ কারণে বৃষ্টি হতে পারে। তবে কালবৈশাখীর জন্য বৃষ্টি বেশি হবে। গত এক সপ্তাহের বৃষ্টিপাতের তথ্যে দেখা যায়, ঢাকায় গত ২৬শে এপ্রিল ২৬ মিলিমিটার, ২৭শে এপ্রিল ৩২ মিলিমিটার, ২৯শে এপ্রিল ৬৮ মিলিমিটার, ৩০শে এপ্রিল ৪১ মিলিমিটার, ১লা মে ৩২ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাস অনুযায়ী- ঢাকা, ময়মনসিংহ, রংপুর, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়া এবং বিজলি চমকানোসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এ ছাড়া দেশের কোথাও কোথাও শিলাবৃষ্টি হতে পারে।

Share on Facebook

Leave a Reply

© 2014 MadhabpurNews24.com. All Rights Reserved
সম্পাদক মন্ডলীর সভাপতি ॥ রোকন উদ্দিন লস্কর, সম্পাদক ॥ আলাউদ্দিন আল রনি, সহযোগী সম্পাদক ॥ জামাল মোঃ আবু নাসের, বার্তা সম্পাদক ॥ আবুল খায়ের, যুগ্ম বার্তা সম্পাদক ॥ ওমর ফারুক, চীফ রিপোর্টার ॥ জুলহাস উদ্দিন খাঁ রিংকু, মাধবপুর, হবিগঞ্জ। মোবাইল ॥ ০১৭১১-৫৮৯৯৯৯৯, ০১৮১৯-১৯৫০৫৭, Email- news@madhabpurnews24.com, Website- www.madhabpurnews24.com